ভারতে পরবর্তী ১০০ কোটি ডোজ ৩-৪ মাসের মধ্যে: টিকা প্যানেল প্রধান

0
45

ভারত আগামী তিন থেকে চার মাসের মধ্যে পরবর্তী ১০০ কোটি ডোজ টিকা দিতে চায়। দেশটির টিকা-সংক্রান্ত প্যানেলের প্রধান গতকাল বৃহস্পতিবার এনডিটিভিকে এই আশাবাদের কথা জানিয়েছেন।

বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে ভারত গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ১০০ কোটি টিকাকরণের মাইলফলক পার করে।

ভারত সরকারের তথ্যের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা, স্থানীয় সময় গতকাল বিকেল নাগাদ প্রায় ৭১ কোটি ৩ লাখ পূর্ণবয়স্ক মানুষ প্রথম ডোজ টিকা পেয়েছেন। আর দুই ডোজই পেয়েছেন প্রায় সাড়ে ২৯ কোটি মানুষ।

ভারতের আগে একই কৃতিত্বের দাবিদার একমাত্র চীন। গত জুন মাসে তারা ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার মাইলফলক অর্জন করে।

১০০ কোটি টিকা দেওয়ার মাইলফলক অর্জন করতে ভারতের ৯ মাসের কিছুটা বেশি সময় লেগেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি টিকাকরণ অভিযান শুরু হয়। তারা ৯ মাস ৫ দিনে ১০০ কোটি টিকাকরণের মাইলফলক স্পর্শ করে।

ভারত সরকারের ন্যাশনাল এক্সপার্ট গ্রুপ অন ভ্যাকসিন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের প্রধান এন কে অরোরা গতকাল বৃহস্পতিবার বলেন, ১০০ কোটির টিকাকরণের মাইলফলক অর্জন করতে ৯ মাসের কিছুটা বেশি সময় লেগেছে। তবে পরবর্তী ১০০ কোটি টিকাকরণে তিন থেকে চার মাস সময় লাগতে পারে।

এন কে অরোরা জানান, ভারতের ৭৭ থেকে ৮০ শতাংশ মানুষ ইতিমধ্যে করোনার টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন। তিনি বলেন, বছরের শেষ নাগাদ দেশের অধিকাংশ প্রাপ্তবয়স্ককে কমপক্ষে এক ডোজ করোনার টিকা দিতে পারা উচিত। আর পরবর্তী ৪ থেকে ৬ সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজও দেওয়া উচিত।

ভারতে সবচেয়ে বেশি টিকাদান হয়েছে উত্তর প্রদেশে। এই সংখ্যা ১২ কোটির বেশি। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। তৃতীয় স্থানে পশ্চিমবঙ্গ। মোদি–রাজ্য গুজরাট ও মধ্যপ্রদেশ যথাক্রমে চতুর্থ ও পঞ্চম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here