অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সারল ভারত

0
40

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচেই ব্যাটিং–সামর্থ্য দেখিয়েছে ভারত। ১৮৯ রানের লক্ষ্য অনায়াসে পার করেছিল ভারত। ইংল্যান্ড তো তা–ও বড় স্কোর করে ভারতকে চ্যালেঞ্জই ছুড়ে দিতে পেরেছিল। কিন্তু অনেক দিন ধরেই টি-টোয়েন্টিতে ধুঁকতে থাকা অস্ট্রেলিয়া তা–ও পারল না। কাল প্রথমে ব্যাট করে ১৫৩ রান তুলেছিলেন স্মিথ-স্টয়নিসরা। সেই লক্ষ্য ১৩ বল আগেই পেরিয়েছে ভারত। সেটাও ৮ উইকেট হাতে রেখেই। টানা দুই জয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সারল ভারত। ২৪ অক্টোবর পাকিস্তান ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হবে বিরাট কোহলির ভারতের। টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। মাত্র ১ রান করে ফিরে যান ফর্ম হারানো ডেভিড ওয়ার্নার। ব্যাটিং অর্ডারে রদবদল করে মিচেল মার্শকে ওপরে উঠিয়ে আসার পরিকল্পনাও কাজে লাগেনি, প্রথম বলেই স্পিনার অশ্বিনের শিকার হয়ে ডেভিড ওয়ার্নারের দেখানো পথে হাঁটেন। হতাশ করেছেন অধিনায়ক ফিঞ্চও, অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ার আগে মাত্র ৮ রান এনে দিয়েছেন দলকে।

১১ রানেই ৩ উইকেট পড়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার হাল ধরেন স্টিভেন স্মিথ এবং ফর্মে থাকা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। দুজনে মিলে চতুর্থ উইকেটে ৬১ রান যোগ করেন তাঁরা। ৫২ বলের জুটি ভাঙে রাহুল চাহারের বলে। ২৮ বলে ৩৭ করে ফিরে যান ম্যাক্সওয়েল। এরপর মার্কাস স্টয়নিসের ২৫ বলে ৪১ রান অস্ট্রেলিয়াকে মান বাঁচানোর মতো পুঁজি এনে দেন। ৪৮ বলে ৫৭ রান করেছেন স্মিথ। ২ ওভারে মাত্র ৮ রান দিয়ে দুই উইকেট তুলে নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। একটি করে উইকেট পান রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার ও শার্দুল ঠাকুর।

ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়েছে ভারতের। লোকেশ রাহুল ও রোহিত শর্মা মিলে উদ্বোধনী জুটিতে তোলেন ৬৮ রান। রাহুল ৩১ বলে ৩৯ রানে ফিরে গেলেও তিন নম্বরে নামা ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদবকে নিয়ে ম্যাচটা কার্যত শেষ করে দেন রোহিত শর্মা। ৪১ বলে ৬০ রান করে তিনি যখন স্বেচ্ছায় প্যাভিলিয়নে ফিরে যান, জয়ের জন্য ভারতের তখন প্রয়োজন ৩০ বলে ৩০ রান।

এ দায়িত্ব বেশ অনায়াসেই পালন করেছেন সূর্যকুমার যাদব এবং চারে ব্যাটিংয়ে নামা হার্দিক পান্ডিয়া। জয় এনে দিতে ১৭.৫ ওভারই যথেষ্ট ছিল তাঁদের জন্য। বিরাট কোহলিকে আর ব্যাটিংয়েই নামতে হয়নি। দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন যাদব, ৫ চার এবং এক ছক্কা ২৭ বলে ৩৮ রান করেছেন তিনি। এক ছক্কায় ৮ বলে ১৪ রান পান্ডিয়ার। ভারতের হারানো একমাত্র উইকেটটি নেন বাঁহাতি স্পিনার অ্যাশটন অ্যাগার।

দুই ম্যাচেই খুব ভালো ব্যাটিং করলেও ষষ্ঠ বোলারের অভাবে ভুগেছে ভারত। কারণ, এক ম্যাচেও বল করেননি অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। কাল তো দুই ওভার করেছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি নিজেই। কিন্তু এ নিয়ে তেমন উদ্বিগ্ন মনে হলো না রোহিত শর্মাকে, ‘হার্দিক খুব ভালো ব্যাটিং করছে, খুব দ্রুত সে বোলিং করাও শুরু করবে। সে এখনো বোলিং শুরু না করলেও আশা করা যায়, প্রথম ম্যাচের আগেই সে বোলিং করার জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে।’

ভারতের টিম ম্যানেজমেন্টও পান্ডিয়ার বোলিং নিয়ে বেশ আশাবাদী। এ ছাড়া ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খরুচে বল করা ভুবনেশ্বর কুমারের এ ম্যাচে ভালো বোলিং করাও দলের জন্য স্বস্তিদায়ক, জানান রোহিত শর্মা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here